Previous
Next

সর্বশেষ

Thursday, 1 April 2021

কাতার সহ ১২ দেশ ও ইউরোপের সব দেশ থেকে বাংলাদেশে সকল ফ্লাইট ও যাত্রী প্রবেশ নিষিদ্ধ।

কাতার সহ ১২ দেশ ও ইউরোপের সব দেশ থেকে বাংলাদেশে সকল ফ্লাইট ও যাত্রী প্রবেশ নিষিদ্ধ।

 কাতার সহ ১২ দেশ ও ইউরোপের সব দেশ থেকে বাংলাদেশে সকল ফ্লাইট ও যাত্রী প্রবেশ নিষিদ্ধ।


বর্তমান করোনা পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে ইউরোপের সব দেশ এবং কাতার সহ আরও ১২টি দেশ থেকে বাংলাদেশে যাত্রী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) গতকাল বুধবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানিয়েছে।


যেসব দেশ থেকে যাত্রী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে তার মধ্যে ইউরোপের দেশগুলো ছাড়াও আছে— আর্জেন্টিনা, বাহরাইন, ব্রাজিল, চিলি, জর্ডান, কুয়েত, লেবানন, পেরু, কাতার, দক্ষিণ আফ্রিকা, তুরস্ক ও উরুগুয়ে।


আগামী ৩ এপ্রিল থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। বহাল থাকবে ১৮ই এপ্রিল পর্যন্ত।


বেবিচকের ফ্লাইট স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড রেগুলেশনস সদস্য গ্রুপ ক্যাপ্টেন এম জিয়া উল কবির স্বাক্ষরিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশে প্রবেশের সময় ও বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পরে অবশ্যই পিসিআরভিত্তিক কোভিড–১৯ নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে। ফ্লাইট বহির্গমণের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে এই টেস্ট সম্পন্ন হতে হবে।

Wednesday, 27 January 2021

নার্স রুনুকে দেওয়া হলো দেশের প্রথম করোনা টিকা

নার্স রুনুকে দেওয়া হলো দেশের প্রথম করোনা টিকা

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৩টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টিকা কার্যক্রম উদ্বোধনের পর-
 তিনি প্রথম টিকা নেন।


সংশ্লিষ্টরা জানান, প্রথম টিকা নেন হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তা। এরপর পর্যায়ক্রমে চিকিৎসক হিসেবে প্রথম টিকা নেন মেডিসিন কনসালটেন্ট ডা. আহমেদ লুৎফর মবিন, তারপর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা, ট্রাফিক পুলিশের সদস্য দিদারুল ইসলাম এবং সেনাবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইমরান হামিদ।


কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জামিল আহমদ বলেন, প্রথম একজন নার্সের শরীরে টিকা প্রয়োগের মধ্যদিয়ে দেশে কোভিড-১৯ টিকা কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তা সাংবাদিকদের বলেন, ভ্যাকসিন নিয়ে অনেকেই অনেক কথা বলছেন।


তবে দেশের মানুষকে উদ্বুদ্ধ করার জন্যে আমি ভ্যাকসিন নেব। অনেকেই ভ্যাকসিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কথা বলছেন।

কিন্তু এটাও বুঝতে হবে  এই ভ্যাকসিনটি কিন্তু তৈরি করা হয়েছে একটি ভালো উদ্দেশ্যেই।
তিনি বলেন,
পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কথা ভেবে যদি কেউ ভ্যাকসিন না নেয়,তবে সেটা ভুল হবে।

কারণ অনেক ওষুধেও কিন্তু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়। আবার অনেকের শরীরে অনেক ধরনের ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়। ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। যদি আমার শরীরে অন্যান্য রোগ বেশি মাত্রায় না থাকে, তবে ভ্যাকসিন নেওয়ার ক্ষেত্রে তো কোনো সমস্যা নেই।

২০১৩ সাল থেকে রুনু ভেরোনিকা কস্তা কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে সিনিয়র স্টাফ নার্স হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে নার্সিংয়ের ওপর প্রশিক্ষণ নেওয়ার আগে ইউনাইটেড হাসপাতালে কাজ করতেন।

Monday, 25 January 2021

সিঙ্গাপুরের  সাবেক অভিনেতা  বাংলাদেশিকে নির্যাতনে দোষী প্রমাণিত

সিঙ্গাপুরের সাবেক অভিনেতা বাংলাদেশিকে নির্যাতনে দোষী প্রমাণিত

সিঙ্গাপুরে এক বাংলাদেশিকে নির্যাতনের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন দেশটির সাবেক অভিনেতা 
পরিচালক নগ আইক লিওঙ্গ ওরফে হুয়াং ইলিয়াং।

জাহিদুল নামে নির্যাতিত বাংলাদেশি সিঙ্গাপুরে ২০১৮ সালে পরিচ্ছন্নতার কাজে নিযুক্ত ছিলেন। খবর-অনলাইন নিউজ পোর্টাল স্ট্রেইটস টাইমসের।

শুক্রবার জেলা জজ জন এনজি তাকে (অভিনেতা) নির্যাতনের একটি ঘটনায় দোষী হিসেবে সাব্যস্ত করে রায় দেন।

আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি আদালত সিদ্ধান্ত দেবেন অভিযুক্ত অভিনেতার কি শাস্তি হতে পারে।এই মামলায় দোষীদের সর্বোচ্চ সাত বছরের কারাদণ্ড, জরিমানা ও বেত্রাঘাতের বিধান রয়েছে।
তবে নগ বয়সে ৫০ বছরের উপরে হওয়ায় তাকে বেত্রাঘাত করা যাবে না।

২০১৮ সালের ১১ই ডিসেম্বর একটি ধাতব পদার্থ দিয়ে বাংলাদেশি জাহিদুলের পেটে ও মাথায় আঘাত করা হয়েছিল।

এতে জাহিদুল কোনোমতে বেঁচে গেলেও কোমর ও মাথার খুলিতে আঘাত পান।
জাহিদুলের বিস্তারিত পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি।

এদিকে আদালতে নগ আইক লিওঙ্গ বলেছেন, জাহিদুল তাকে ‘বাবা’ হিসেবে মেনে শাসন ও মারধরের অধিকার দিয়েছেন।

২০ বছরের বেশি সময় অভিনয় করেছেন নগ আইক লিওঙ্গ।
পর পর ২০০২, ২০০৩, ও ২০০৬ সালে তিনি সেরা সহ-অভিনেতার পুরস্কার জিতেন।

Thursday, 14 January 2021

আমেরিকান ইমু-হোয়াটস্ এ‍্যাপ ছেড়ে মুসলিম দেশের Bip ব‍্যাবহার করার জন‍্য এরোদেগানের আহ্বান

আমেরিকান ইমু-হোয়াটস্ এ‍্যাপ ছেড়ে মুসলিম দেশের Bip ব‍্যাবহার করার জন‍্য এরোদেগানের আহ্বান

আমেরিকান imo - WhatsApp ছাড়ুন! তুর্কি Bip App ব্যবহার করুন!

শোস্যাল মিডিয়ায় আরো একধাপ এগিয়ে গেলো মুসলিমরা। এখন WhatsApp, imo এর বিপরীতে তুর্কিরা নিয়ে এসেছে Bip ম্যাসেজিং app।

তুর্কি রাষ্ট্রপতি স্বয়ং এরদোগানও এই Bip app ব্যবহার করছেন। এবং মুসলিম বিশ্বকে এই app ব্যবহারের আহ্বান জানিয়েছেন। 

এমনকি তিনি আরও বলেছেন, এই App মুসলমানদের সবধরনের তথ্য গোপন রাখবে। যেটা আমেরিকান App WhatsApp এবং ইমু করতো না।

ইমুতে অশ্লীল বিজ্ঞাপন এবং ওয়াটসাপে নিরাপত্তাহীনতার কারণে বয়কট করার সময় হয়েছে। মুসলিম হিসেবে সবাইকে তুর্কীর এই নিরাপদ এ্যাপটি ব্যবহার করার আহ্বান জানাচ্ছি। 

আমিও ব্যবহার করছি, আপনিও করুন। এবং আপনার বন্ধুবান্ধবদের আহবান করুন।

এখানে ডাউনলোড লিংক দেয়া হয়েছে। লিংক থেকে ডাউনলোড করতে পারেন-

iOS:
https://apps.apple.com/sa/app/bip-messenger-video-call/id583274826
Play Store:

https://play.google.com/store/apps/details?id=com.turkcell.bip

#Boycott_Imo_App
#Boycott_pornography

Saturday, 9 January 2021

৭১'এর গণহত্যার জন্য বাংলাদেশ পাকিস্তানের কাছে ক্ষমা চাইছে

৭১'এর গণহত্যার জন্য বাংলাদেশ পাকিস্তানের কাছে ক্ষমা চাইছে

বাংলাদেশ ক্ষমা চেয়েছে পাকিস্তানের কাছে!ভারতের নিউজ চ‍্যানেলে প্রচারিত

নয়াদিল্লী  এমনকি, পাকিস্তান এর জন্য সমস্ত ভিসা বিধিনিষেধ অপসারণ করেছে বাংলাদেশী নাগরিকরা পাকিস্তান সফর করবেন, 
 
DhakA 
ক্ষমা চাওয়া হয়েছে উভয় দেশকে এগিয়ে যেতে সক্ষম করার জন্য এবং একাত্তরের গণহত্যার জন্য।
এটি বাংলাদেশের জন‍্য গুরুত্বপূর্ণ  যখন বাংলাদেশে  মুক্তির ৫০ বছর উদযাপন করা হবে।

শাহরিয়ার আলম, বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বৃহস্পতিবার ঢাকায় পাকিস্তানের নতুন হাই কমিশনার ইমরান আহমেদ সিদ্দিকীকে বলেছেন, 
বকেয়া সমাধানের জন্য বাংলাদেশে আটকে থাকা পাকিস্তানীদের প্রত্যাবাসন সমাপ্তকরণ এবং সম্পত্তির বিভাজনের বিষয়টি নিষ্পত্তি করার পাশাপাশি ক্ষমা চাওয়া গুরুত্বপূর্ণ ছিল। 

পাকিস্তানের সাথে দ্বিপক্ষীয় ইস্যু।
দ্বারা প্রকাশিত একটি বিজ্ঞপ্তি অনুসারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়মন্ত্রী পাকিস্তানকে সাফ্টা(SAFTA) বিধানের অধীনে আরও বেশি বাংলাদেশী পণ্য অ্যাক্সেস দেওয়ার এবং নেতিবাচক তালিকা এবং অন্যান্য বাণিজ্য বাধা শিথিল করার আহ্বান জানান।


এদিকে,পাকিস্তানের নতুন রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশ সরকারকে বলেছে,পাকিস্তান বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য পাকিস্তানী ভিসার সমস্ত বিধিনিষেধ ইতিমধ্যে অপসারণ করেছে। 

বৃহস্পতিবার আলম ও পাকিস্তানি সিদ্দিকীর মধ্যে বৈঠকের পর জারি করা এক পাকিস্তানের বিবৃতিতে বলা হয়েছে:-উভয় পক্ষই সর্বস্তরে দ্বিপাক্ষিক যোগাযোগকে আরও জোরদার করতে সম্মত হয়েছে।

শেখ হাসিনা সরকারের দাবি গুলো তখনি পেশ করা হবে যখন পাকিস্তান বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য সমস্ত ভিসা শুল্ক অপসারণ করবে।

Dhaka বলেছে, ক্ষমা চাওয়া উভয় জাতিকে এগিয়ে যেতে সহায়তা করবে।

সুত্র:নয়াদিল্লি
ধানমন্ডিতে ধর্ষণের কারণে  শিক্ষার্থীর মৃত্যু :আটক ৪ জন।

ধানমন্ডিতে ধর্ষণের কারণে শিক্ষার্থীর মৃত্যু :আটক ৪ জন।

রাজধানীর কলাবাগানের ডলফিন গলি এলাকায় ধানমন্ডির মাস্টারমাইন্ড স্কুলের এক শিক্ষার্থীকে টানা ধর্ষণে ফলে প্রচন্ড রক্তপাতে মৃত্যু হয়।

নিহত ওই তরুণী (১৭) ও লেভেলের শিক্ষার্থী ছিলেন। এ ঘটনায় তার বয়ফ্রেন্ড ফারদিন ইফতেখারকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া তার আরও তিন সহপাঠীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করার কথা জানিয়েছে কলা বাগান থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে নিহত শিক্ষার্থীর বোনজামাই শরীফ বলেন, সে সম্পর্কে আমার চাচাতো শ্যালিকা।

এ বছর মাস্টারমাইন্ড স্কুল থেকে ও-লেভেল পরীক্ষা দেয়ার কথা ছিল। বৃহস্পতিবার দুপুর তিনটার দিকে কলাবাগানের ডলফিন গলিতে কোচিং করতে গেলে এ সময় তার এক বান্ধবী মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে একটি বাসায় নিয়ে যায়। এ সময় ওই বাসাতে চারজন মিলে তাকে ধর্ষণ করে।

যখন প্রচন্ড রক্তপাত শুরু হয় তখন ধর্ষণে অভিযুক্ত ফারদিন ইফতেখার দিহান তাকে ধানমন্ডির আনোয়ার খান মর্ডান হাসপাতালে নিয়ে যায়।

পরবর্তীতে বিকাল পাঁচটায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। লাশ বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। এ বিষয়ে আমরা মামলা করেছি।

তিনি জানান, নিহত শিক্ষার্থীর মা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে চাকরি করেন। বাবা ব্যবসায়ী। তিন ভাই বোনের মধ্যে সে ছিল বড়।

ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে থাকতেন। নিহত শিক্ষার্থীর মা জানান, আমার মেয়েকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। ও আমাকে যখন ফোন করে জানিয়েছিল তখন আমি অফিসে ছিলাম। আমাকে জানায়, মা আমি ক্লাসের ওয়ার্কসিট আনতে যাচ্ছি।

এই বলে গেছে। দুপুর একটার পরে একটি ছেলে মুঠোফোন থেকে ফোন দিয়ে জানায়, আমার মেয়ে অজ্ঞান হয়ে গেছে। ওকে হাসপাতালে নিয়ে এসেছি। আপনারা আসেন। পরবর্তীতে গিয়ে দেখি মেয়ের নিথর দেহ পড়ে আছে। ওকে হাসপাতালেই আনা হয়েছে মৃত।

এ বিষয়ে কলাবাগান থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) ঠাকুর দাস জানান এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

Thursday, 7 January 2021

১ হাজার টাকা করে কিডস্ এলাউন্স দেওয়া হবে প্রাইমারি শিক্ষার্থীদের - প্রধানমন্ত্রী

১ হাজার টাকা করে কিডস্ এলাউন্স দেওয়া হবে প্রাইমারি শিক্ষার্থীদের - প্রধানমন্ত্রী

প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের ১ হাজার টাকা করে কিডস্ এলাউন্স দেওয়া হবে।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের ১ হাজার টাকা করে কিডস্ এলাউন্স দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সরকারের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি ও তৃতীয় বর্ষে পদার্পন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে তিনি এ কথা জানান।


প্রধানমন্ত্রী বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের ১ হাজার টাকা করে কিডস্ এলাউন্স দেওয়া হবে। এজন্য ১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা ব্যয় হবে।

করোনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার বিষয়ে শেখ হাসিনা বলেন, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার কথা বিবেচনা করে আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রাখতে হচ্ছে। শুধু আমাদের দেশেই নয়, গোটা বিশ্বেই একই পরিস্থিতি।
তবে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ নেই। অনলাইনে এবং স্কুল পর্যায়ের জন্য টেলিভিশনের মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেওয়া হবে।বছরের প্রথম দিনেই নতুন বই বিতরণ শুরু হয়েছে।

শিক্ষাখাতে সরকারের নেয়া পদক্ষেপ সংক্ষিপ্ত আকারে তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন,২০১৯-২০ অর্থবছরে প্রাথমিক থেকে উচ্চশিক্ষা পর্যন্ত প্রায় ২ কোটি টাকা শিক্ষার্থীর মধ্যে ২ হাজার ৯৫৮ কোটি টাকার বৃত্তি-উপবৃত্তি বিতরণ করা হয়েছে।

২০২০ সালে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট্রের আওতায় স্নাতক ও সমমানের শ্রেণির আরও ২ লাখ ১০ হাজার ৪৯ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে প্রায় ১১১ কোটি বিতরণ করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, দেশের ৭ হাজার ৬২৪টি এমপিওভুক্ত মাদ্রাসায় ১ লাখ ৪৮ হাজার ৬১ জন শিক্ষক-কর্মচারিকে প্রতিমাসে ২৭৬ কোটি টাকা বেতন ভাতা দেওয়া হচ্ছে।

২০২০ সালে নতুন করে ৪৯৯টি মাদ্রাসা এমপিওভুক্ত করা হয়েছে। ১ হাজার ৫১৯টি এবতেদায়ি মাদ্রাসার ৪ হাজার ৫২৯ জন শিক্ষককে ত্রৈমাসিক ৩ কোটি ১৫ লাখ টাকা অনুদান দেওয়া হচ্ছে।
দাওয়ারে হাদিস পর্যায়কে মাস্টার্স সমমান দেওয়া হয়েছে। সারা দেশে ৫৬০টি মডেল মসজিদ এবং ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র গড়ে তোলা হচ্ছে বলেও জানান

সুত্র:যুগান্তর