Friday, 29 May 2020

মালয়েশিয়া সরকার সুখবর দিলো জেলখানায় বন্দী প্রবাসীদের।

মালয়েশিয়ার জেলখানায় বন্দী অবৈধ অভিবাসীদের নিজ নিজ দেশে ফেরাতে উদ্যোগ নিয়েছে মালয়েশিয়া সরকার। দেশটিকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ হলেও জেলখানার বন্দীদের মাঝে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

প্রেস ব্রিফিংয়ে মালয়েশিয়ার মন্ত্রী (সিকিউরিটি) ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব বলেন, ‘জেলখানায় বন্দীদের মধ্যে যারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে তাদের চিকিৎসা দেওয়া হবে এবং যারা এখনো সুস্থ আছে তাদের নিজ নিজ দেশে ফেরাতে সরকার কাজ শুরু করেছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা বিভিন্ন দেশের দূতাবাস এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নিজ দেশের নাগরিকদের ফিরিয়ে নিতে বলব।’ এ ছাড়াও তিনটি বন্দী শিবিরের অবৈধ অভিবাসীদের সকলকে কোভিড- ১৯ পরীক্ষা করার সিদ্ধান্তর নেওয়া হয়েছে বলে জানান।

করোনার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে‘মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার’ ঘোষণা করা হয়। ধাপে ধাপে বৃদ্ধি করে তা ৮ জুন পর্যন্ত করা হয়। করোনাভাইরাস কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসায় দেশের অর্থনীতির চাকা সচল  শর্তসাপেক্ষে শিথিল করা হয় এবং বেশ কিছু কাজের অনুমতি দেওয়া হয়।

গত তিন সপ্তাহে মালয়েশিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা যেখানে ১০০ নিচে ছিল, হঠাৎ করেই ঈদের পরের দিন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ১৭০ জনে।

আজ মঙ্গলবার নতুন করে আরও ১৮৭ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক আক্রান্ত হয়েছে বড় তিনটি ইমিগ্রেশন ক্যাম্প থেকে।

প্রসঙ্গত, মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন ক্যাম্পে প্রায় ১ হাজার ২০০ জনকে আটক রয়েছে, যার মধ্যে অনেকেরই সাজা ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে।


শেয়ার করুন

0 Please Share a Your Opinion.: