Monday, 8 June 2020

বাড়িওয়ালার স্ত্রীর সহযোগিতায় ভাড়াটিয়া নারীকে 'ধর্ষণ' -


মনিরুজ্জামান মনির, ঝিনাইদহ- ঝিনাইদহ পৌর এলাকার পবহাটী গ্রামের মৃতঃ জলিল মন্ডলের ছেলে বাচ্চু মন্ডলের বিরুদ্ধে বাড়িওয়ালার স্ত্রীর সহযোগিতায় ওই বাড়ির এক ভাড়াটিয়ার স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা নিজেই বাদি হয়ে গতকাল সোমবার (৮ জুন) দুপুরে ঝিনাইদহ সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, ধর্ষিতার স্বামী ব্যবসার সুবাদে ঝিনাইদহ পৌর এলাকার পবহাটী গ্রামের মোঃ ইকবাল হোসেনের বাড়িতে ভাড়া থাকেন। ঘটনার রাতে কাজের ব্যস্ততার কারণে ধর্ষিতার স্বামী বাসায় না থাকার সুযোগে ধর্ষক বাচ্চু মিয়া তার অনৈতিক লালসা চরিতার্থ করার জন্য বাড়িওয়ালার স্ত্রী মোছাঃ রেশমা খাতুনের সাথে যোগ সাজসে ধর্ষিতার ঘরে প্রবেশ করে এবং বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা জানিয়েছেন, তার স্বামী বাড়ি না থাকার কারণে একই বাসার ভাড়াটিয়া আলমগীর হোসেনের স্ত্রী মোছাঃ আখিরন নেছাকে তার কাছে নিয়ে ঘুমাই। হঠাৎ রাত আনুমানিক ১১টার দিকে বাড়িওয়ালার স্ত্রী রেশমা তার দরজায় নক করে এবং দরজা খুলতে বলে। দরজা খোলার সাথে সাথে ধর্ষক বাচ্চু রুমের মধ্যে প্রবেশ করে এবং বাড়িওয়ালা রেশমা বেগম পাশে থাকা আখিরনকে ধাক্কা মেরে বাহিরে বের করে দিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয়। এরপর ধর্ষক ধর্ষিতাকে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে।

ঘটনার বিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, খবর পাওয়া মাত্রই আমরা ধর্ষককে আটক করেছি। পরে ধর্ষকের স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দিতে নারী ও শিশু নির্যাতন আইন ২০০০ (সংশোধনি-২০১৩) এর ৯ (১)/ ৩০ ধর্ষক বাচ্চু ও বাড়িওয়ালা রেশমা খাতুনের নামে মামলা হয়েছে।


শেয়ার করুন

0 Please Share a Your Opinion.: