Monday, 8 June 2020

চার্জের সময় হেডফোন কানে করে ঘুমানো , আগুনে পুড়ল মা ও ছেলে




হেডফোন চার্জ দেওয়া অবস্থায় ব্যবহারের সময় বিদ্যুতায়িত হয়ে ঘরে আগুন লেগে এক কিশোর ও তার মা মারাত্মকভাবে আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ পৌরসভার জয়রামপুর গ্রামে। আহত অবস্থায় উদ্ধার করে মা ও ছেলেকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, জয়রামপুর গ্রামের মিজানুর রহমানের ভাড়াটিয়া বানুরানী দাস ও তার ১৭ বছরের সন্তান অপূর্ব দাস আজ সকালে বিদ্যুতায়িত হয়ে শরীরে আগুন লেগে মারাত্মকভাবে আহত হয়েছে। পাশের রুমের ভাড়াটিয়া খাদিজা আক্তার জানান, সকাল বেলা হঠাৎ করে বিকট আওয়াজ শুনে ঘুম থেকে উঠে দেখি ঘরে আগুন জ্বলছে। এ সময় ডাক চিৎকার দিলে বাড়িওয়ালার স্ত্রী দৌড়ে এসে ডাকাডাকি করে জাগিয়ে তোলে।

অপূর্বদের রুমে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ ছিল। দরজা খুলেই অপূর্ব মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এ সময় তারা শরীরে হেডফোনের তার পেঁচানো ছিল। তখন তার জ্বলছিল। এমন সময় ঘরে ঢুকে তার মাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে দ্রুত ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বর্তমানে তারা উভয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন।

বাড়ির মালিক মিজানুর রহমান জানান, কিভাবে আগুন লেগেছে তা বলতে পারব না। তবে সে যখন ঘর থেকে বেরিয়ে আসে তখন তার কানে হেডফোন লাগানো ছিল। সেটি আগুনে পুড়ছিল। এ সময় তার মুখ ও বুক ঝলসানো ছিল। ঘরে তার মায়ের মাথার চুল আগুনে পোড়া ছিল। আগুনে খাট, তোশক ও আসবাবপত্র পুড়ে গেছে। অপূর্ব ও তার মাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ পাঠানো হয়েছে।


সুত্র কপি

শেয়ার করুন

0 Please Share a Your Opinion.: