Thursday, 23 July 2020

টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার ঝিনাই নদী সংলগ্ন দেউলী-কামুটিয়া রাস্তার

টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার ঝিনাই নদী সংলগ্ন দেউলী-কামুটিয়া রাস্তার কামুটিয়া  ৫০ মিটারের বেশি রাস্তা ভেঙ্গে ঝিনাই নদীর পানিতে কাশিল ও ফুলকী ইউনিয়ন প্লাবিত হয়েছে এবং বাসাইল-কাঞ্চনপুর সড়কের ছনকাপাড়া এলাকায় প্রবল স্রোতে একটি ব্রিজ ভেঙ্গে গেছে। ব্রিজ দুটি ভেঙ্গে যাওয়ায় উভয় এলাকার প্রায় ৪৮ গ্রামের মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েছে।

গত বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) উপজেলার কাশীল ইউনিয়নের দেওলী-কামুটিয়া সড়কের উত্তরপাড়ার  রাস্তার ব্রিজ এবং বাসাইল-কাঞ্চনপুর সড়কের ছনকাপাড়া এলাকার ব্রিজ ভেঙ্গে যায়।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ঝিনাই নদীর পানি বৃদ্ধিতে প্রতিবছরই নদী তীরবর্তী বাড়িঘর রাস্তাঘাট ভেঙে যায়। এবছর গত কয়েক দিনের ক্রমাগত বর্ষণে কাশীল ইউনিয়নের দেউলী-কামুটিয়া রাস্তাটি বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঝিনাই নদীর পানি বৃদ্ধি এবং তীব্র স্রোতে গত বৃহস্পতিবার সকালে ওই রাস্তার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হতে থাকে। পরে দুপুরের দিকে বিকট শব্দে ৫০-৬০ হাত রাস্তা ভেঙ্গে যায়।

ধীরে ধীরে ভাঙন আরো বেড়ে কাশীল ইউনিয়নের কামুটিয়া, বাথুলীশাদী, কাশীল, পিচুড়ী, স্থলবল্লা এবং ফুলকী ইউনিয়নের জশিহাটি, ময়থা চরপাড়া, সোনাপাড়া, কমলাপাড়া, গাছপাড়া, মুড়াকৈ, নেদার, তিরঞ্জ, ঝনঝনিয়া, ফুলকি, নিরাল, খাটরা, করটিয়াপাড়া, পার্শ্ববর্তী বাদিয়াজান, কাউলজানী, সেহরাইল, মহিষখালীসহ প্রায় ২৮টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে করে ওই এলাকার রাস্তাঘাট ডুবে যাতায়াত বন্ধ হয়ে গেছে।

এদিকে গত বুধবার বিকাল থেকে বাসাইল-নাটিয়াপাড়া পাকা সড়কের বিভিন্নস্থানে ডুবে গিয়ে বন্যার পানি কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় প্রবেশ করে। এ কারণে বাসাইল-কাঞ্চনপুর সড়কের ছনপাড়ার ব্রিজটিতে ব্যাপক স্রোত পড়ে। গত বৃহস্পতিবার সকালে ব্রিজটির দক্ষিণ পাশে ভাঙন শুরু হয়। বিকালে ব্রিজটি হঠাৎ করে ভেঙ্গে যায়।



শেয়ার করুন

0 Please Share a Your Opinion.: