Sunday, 9 August 2020

সরকারের ব্যর্থতার দায় স্বীকার করে লেবাননের তথ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ



বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে দেড় শতাধিক মানুষের মৃত্যুর পর লেবাননের ক্ষমতাসীন সরকারের ব্যর্থতার দায় স্বীকার করে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির তথ্যমন্ত্রী মানাল আবদেল সামাদ। বৈরুত বিস্ফোরণে পর কয়েকদিন ধরে দেশটিতে চলমান ব্যাপক জনবিক্ষোভের মাঝে রোববার তিনি পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

টেলিভিশনে দেয়া এক সংক্ষিপ্ত ভাষণে লেবাননের এই মন্ত্রী বলেন, বৈরুতে বিশাল বিপর্যয়ের পর আমি সরকার থেকে পদত্যাগ করেছি। আমি লেবাননিজদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমরা তাদের প্রত্যাশাপূরণ করতে পারিনি।

শনিবার সন্ধ্যায় দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সরকারি বিভিন্ন অফিসে সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীদের হামলার পর পদত্যাগ করলেন মন্ত্রী মানাল আবদেল সামাদ। শনিবার রাজধানী বৈরুতে হাজার হাজার বিক্ষোভকারীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এ সময় বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে পুলিশ।

রোববার লেবাননের রেড ক্রস বলছে, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত অন্তত ৬৫ জনকে পার্শ্ববর্তী হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এছাড়া ঘটনাস্থলে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে আরও ১৮৫ জনকে।

ফরাসী বার্তাসংস্থা এএফপি বলছে, শনিবারের ওই সংঘর্ষে পুলিশের অন্তত এক কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। এদিকে, দেশটির প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, তিনি সংসদে আগাম নির্বাচনের প্রস্তাব করবেন। দেশের এই সঙ্কটে সব রাজনৈতিক দলকে ভেদাভেদ ভুলে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

গত মঙ্গলবার বৈরুতের পূর্বাঞ্চলীয় বন্দরে ভয়াবহ বিস্ফোরণে দেড় শতাধিক মানুষের প্রাণহানি ঘটে। এতে আহত হয়েছেন আরও ৫ হাজারের বেশি। জাতিসংঘ বলছে, লেবাননের এই বিস্ফোরণে দেশটির রাজধানীর তিন লাখের বেশি বাসিন্দা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। বিস্ফোরণের জন্য দেশটির সরকারের অবহেলা এবং দুর্নীতিকে দায়ী করে হাজার হাজার মানুষ সরকারবিরোধী বিক্ষোভ করছেন।

লেবাননের সরকারি কর্মকর্তারা বলেছেন, বৈরুতের বন্দরের একটি গুদামে অবৈধভাবে মজুদ করে রাখা ২ হাজার ৭৫০ টনের বেশি অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের বিস্ফোরণ ঘটেছে।


শেয়ার করুন

0 Please Share a Your Opinion.: