Sunday, 16 August 2020

উন্নয়ন ফি আদায়ে সব রুটেই প্লেনের টিকিটের খরচ বাড়লো।

বাংলাদেশের বিমানবন্দর ব্যবহার করে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের টিকিটে যাত্রী নিরাপত্তা (প্যাসেঞ্জার সিকিউরিটি ফি) ও বিমানবন্দর উন্নয়ন ফি (এয়ারপোর্ট ডেভেলপমেন্ট ফি) আদায় শুরু হয়েছে।

এর ফলে সব রুটেই প্লেনের টিকিটের খরচ বাড়লো।


গত ২২ জুলাই বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) এই দুই ধরনের ফি আরোপ করে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে। ১৬ আগস্ট রোববার থেকে প্রজ্ঞাপনটি কার্যকর করা হয়।

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন তৌহিদ-উল-আহসান জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রোববার সকাল থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন ও নভোএয়ারের টিকিটের দামের সঙ্গে অতিরিক্ত ফি আরোপ করতে দেখা যায়। এছাড়াও এই দুই ফি আরোপের কারণে বেড়েছে ভ্যাটের অংকের পরিমাণ (ভ্যালু অ্যাডেড ট্যাক্স অন ফি)।

ফি’র পরিমাণ


সার্কভুক্ত দেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে বিমানবন্দর উন্নয়ন ফি দিতে হবে ৫ মার্কিন ডলার এবং যাত্রী নিরাপত্তা ফি ৬ মার্কিন ডলার। সার্কভুক্ত ছাড়া অন্য দেশের ক্ষেত্রে বিমানবন্দর উন্নয়ন ফি দিতে হবে ১০ ডলার এবং এবং যাত্রী নিরাপত্তা ফি দিতে হবে ১০ ডলার।

এছাড়াও দেশের অভ্যন্তরে যাত্রীদের প্রতিবার ভ্রমণে বিমানবন্দর উন্নয়ন ফি দিতে হবে ১০০ টাকা এবং যাত্রী নিরাপত্তা ফি দিতে হবে ৭০ টাকা।

অতিরিক্ত ফি’র ওপর দিতে হবে ভ্যাট।

শেয়ার করুন

0 Please Share a Your Opinion.: