Thursday, 6 August 2020

ইউরোপে পাঠানোর প্রলোভন : লিবিয়ার নাগরিকসহ আটক ৬






বাংলাদেশের ভিসার শর্তভঙ্গ এবং ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাঠানোর প্রলোভন দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে লিবিয়ার এক নাগরিকসহ ৬ জনকে আটক করেছে র‌্যাব।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) বিকেলে এক অভিযানে তাদের আটক করা হয়। র‍্যাব ও জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থা (এনএসআই) যৌথভাবে অভিযানটি পরিচালনা করে।

আসামিরা হলেন- লিবিয়ার নাগরিক সামির আহমেদ ওমর ফিরোজ (৪৫), সুফি ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান আব্দুল গোফরান (৬০), ম্যানেজিং ডিরেক্টর মিজানুর রহমান (৩৪), ম্যানেজার মো. নজরুল ইসলাম (৪২), হিসাবরক্ষক মহিন উদ্দিন (৩১) এবং ম্যান পাওয়ার এজেন্ট মো. সোহেল (২৪)।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, র‌্যাব-৩ গোয়েন্দা সূত্রে জানতে পারে, লিবিয়ার নাগরিক সামির আহমেদ ওমর ফিরোজ টুরিস্ট ভিসায় বাংলাদেশে এসে বিধি বহির্ভূতভাবে ইনভেস্টর (ডিআই)/ইমপ্লয়মেন্ট (ই)/ওয়ার্ক পারমিট গ্রহণ না করেই ঢাকার সুফি ইন্টারন্যাশনাল লি. নামক রিক্রুটিং এজেন্সির সঙ্গে যুক্ত হয়ে অবৈধভাবে জনশক্তি রফতানির ব্যবসায় দীর্ঘদিন যাবত জড়িত আছেন। তিনি রাজধানীর একটি হোটেলে অবস্থান করে বিভিন্ন ধরনের অবৈধ কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। এক ভিক্টিমের অভিযোগের ভিত্ততে লিবিয়ার নাগরিক সামির আহমেদকে মঙ্গলবার হাতিরঝিল এলাকা থেকে আটক করা হয়। বাকিদের বুধবার আটক করা হয়।

সামির আহমেদ বাংলাদেশের সাধারণ নাগরিকদের চার লাখ টাকার বিনিময়ে লিবিয়া হয়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাঠানোর বিশেষত ইতালিতে পাঠানোর প্রলোভন দেখিয়ে আসছিলেন। লিবিয়ায় তাদের নিজেদের বিভিন্ন কোম্পানিতে প্রতি বছর বহুসংখ্যক নিয়োগ ও অধিক বেতন দেয়া হয় বলেও ব্যাপক প্রচারণা চালান। বাংলাদেশের নাগরিকদের নির্ধারিত দালালের মাধ্যমে সংগ্রহ করে অবৈধভাবে বিদেশে পাঠাতে প্ররোচিত করে আসছিলেন সামির আহমেদ।

আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেছে র‍্যাব।

শেয়ার করুন

0 Please Share a Your Opinion.: