Friday, 16 October 2020

বাংলাদেশের প্রথম নারী ট্রেন চালক টাঙ্গাইল জেলা ভুয়াপুরের, সালমা খাতুন

 বাংলাদেশের প্রথম নারী ট্রেন চালক #ভুয়াপুরের সালমা খাতুন



জন্ম ১৯৮৩ সালের ১ জুন, টাঙ্গাইলের ভুয়াপুরের একটি কৃষক পরিবারে। ২০০০ সালে এসএসসি এবং ২০০২ সালে এইচএসসি পাস করেন।পরিবারের আর্থিক টানাপোড়েনের কারণে এর চেয়ে বেশি পড়তে পারেননি তখন। এরপর নিউজপেপারে বাংলাদেশ রেলওয়ের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বিজ্ঞাপন দেখে তিনি আবেদন করেন একজন সহকারী ট্রেন চালক হিসেবে।


ট্রেনিংয়ের সময় উনাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল তিনি এই কাজ করতে পারবেন কিনা, তিনি বলেছিলেন এই চাকরি তিনি করতে চান এবং অবশ্যই পারবেন।রেলের কর্মকর্তারাও উনাকে অনেক উৎসাহ এবং অনুপ্রেরনা দিয়েছেন।


পরিবার থেকে সবচেয়ে বেশি সাহায্য পেয়েছেন বড় ভাইয়ের কাছ থেকে, এখন স্বামীর কাছ থেকে অনেক সমর্থন পাচ্ছেন। তিনি দুই কন্যা সন্তানের জননী।ট্রেন চালানোর পাশাপাশি সংসারটাকেও খুব সুন্দর এবং পরিপাটি করে সাজিয়ে রেখেছেন তিনি। মাঝখানে ট্রেন চালানোর পাশাপাশি লেখাপড়াও চালিয়ে গেছেন, ২০১৫ সালে কবি নজরুল কলেজ থেকে মাস্টার্স সম্পন্ন করেছেন। 


ছোটবেলায় চাইতেন ব্যতিক্রমী কিছু করে দেখাতে। সেই সুবাদেই বাংলাদেশ রেলওয়েতে যোগ দেওয়া। অনেকেই তাঁকে কথা শুনিয়েছেন - মেয়ে হয়ে কেন ট্রেন চালাতে এসেছেন, মেয়ে মানুষ আবার ট্রেন চালায় নাকি ইত্যাদি।  তিনি সেসব কথায় কিছু মনে না করে এগিয়ে গেছেন নিজের মতো করে। তাঁকে দেখে এখন অন্য নারীরাও এখন এগিয়ে আসছেন এই পেশায়। তিনি চান আরও অনেক নারী এই পেশায় আসুক।


বর্তমানে তিনি ঢাকা - নারায়নগঞ্জ রুটে ডেমু ট্রেন চালাচ্ছেন। আগামীতে হয়তো দূরের পথের আন্তনগর ট্রেনও চালাবেন। মেয়েদের জন্য সালমা খাতুন এখন একটি অনুপ্রেরণার নাম। মেয়েরাও এগিয়ে আসুক উনাকে দেখে সেটাই তিনি চান। শুভ কামনা, ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা রইলো তাঁর প্রতি।


শেয়ার করুন

0 Please Share a Your Opinion.: