Wednesday, 23 December 2020

মালয়েশীয়ায় শ্রমিকদের বাসস্থান গৃহপালিত পশুর মতো

গৃহ পালিত পশুর মত শ্রমিকদের বাসস্থান


ঘরগুলো সরু এবং যেমন মহিষের খাঁচার মতো নোংরা এবং দুর্গন্ধযুক্ত বর্ণনা করেছেন মানবসম্পদ মন্ত্রী এম সারাভানান। এটাই হোস্টেলের আসল পরিস্থিতি। মন্ত্রী কাজাং এর বাতু ১৩ চেরাসের একটি গ্লোভ-প্রসেসিং কারখানায় বিদেশি শ্রমিকদের জীবনযাত্রার অবস্থা পরিদর্শন করার পরে হতবাক হয়েছিলেন।

মালয়েশিয়ার ওয়ার্কিং অ্যাকশন কমিটি, স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়, পুলিশ এবং কাজাং পৌর কাউন্সিলের (এমপিকেজে) ৬০ জন সদস্য এই অভিযান পরিচালনা করেছিলেন।

শ্রমিকদের দুটি দীর্ঘ ১.৫ মিটার দীর্ঘ কন্টেইনারে' পাইলড' করা হয়েছিল, যা ঘর হিসাবে ব্যবহৃত হয়। এ গুলোতে একসাথে মাত্র ১০০জন লোক থাকার জন্য ধারণা করা হয়েছিল তবে ৭৫১ জন এতে বাস করছেন।

মহামারী চলাকালীন, গ্লোভ শিল্প রেকর্ড পরিমাণ লাভ করছে। দুর্ভাগ্যক্রমে, সাফল্য সেই শ্রমিকদের কাছে যায় নাই যারা এই কোম্পানির মেরুদন্ড।

মানব সম্পদ মন্ত্রী আরো বলেন, নতুন করে যারা বিদেশি শ্রমিক আনার জন্য আবেদন করবে, তাদের আগে কর্মীদের বাসস্থান সহ মৌলিক অধিকারগুলি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি এবং সে অনুযায়ী ব্যবস্থা থাকলেই কেবল মাত্র বিদেশি শ্রমিক আনার অনুমতি পাবে।




শেয়ার করুন

0 Please Share a Your Opinion.: